মেসির প্রতি নমনীয় হচ্ছে বার্সা।

বার্সেলোনার সঙ্গে বুদ্ধির লড়াইটাও করতে হচ্ছে লিওনেল মেসির। সেই লড়াইয়ে এগিয়ে থাকছেন মেসিই। বার্সার একের পর এক চিন্তা রুখে দিচ্ছেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। মেসি-বার্সার মধ্যে যুদ্ধের আভাস তাই শীতিল হতে শুরু করেছে। কারণ মেসির প্রতি নমনীয় হচ্ছে বার্সেলোনা।

কাতালান ক্লাবটি বুঝে গেছে মেসি বার্সেলোনায় থাকবেন না। ম্যানচেস্টার সিটিতে যাবেন তিনি। মানসিকভাবে সেই প্রস্তুতি তিনি নিয়েই রেখেছেন। মেসিকে তারা শেষ পর্যন্ত রুখতে পারবে না কাতালানরা। বরং দুই পক্ষের সম্পর্ক তিক্ত হওয়ার সম্ভাবনা জোরালো।

কারণ বার্সা মেসির সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি হচ্ছে না। মেসি তাই অনুশীলনে যোগ দেবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন। বার্সা তাই কোণঠাসা হয়ে মেসির রিলিজ ক্লজের শর্ত শীতিল করার কথা ভাবছে।

সংবাদ মাধ্যম মিরর জানিয়েছে, বার্সেলোনা মেসির দাম নির্ধারণ করেছে ২৮০ মিলিয়ন ইউরো। নগদ অর্থে মেসিকে এই দামেও কেনা অসম্ভব সিটির জন্য। বার্সা তাই ১৩০ মিলিয়ন ইউরোর সঙ্গে ম্যানসিটি থেকে ফুটবলার নেওয়ার কথা চিন্তা করছে। শত মিলিয়নের কাছাকাছি একটা নগদ ফান্ড পেতে চায় তারা। সেটা না পেলেই ধরতে পারে শক্ত পথ।

লিওনেল মেসি অবশ্য ফ্রিতে দল ছাড়ার অনুরোধপত্র পাঠিয়েছে বার্সাকে। মেসির দাবি, তার চুক্তিতে আছে ২০২০ মৌসুম শেষে তিনি ক্লাব ছাড়তে পারবেন। সেখানে সময়ের কোন উল্লেখ নেই। বার্সা দাবি করছে, ১৪ জুন শেষ হয়েছে মেসির ফ্রিতে দলবদলের শেষ সময়।

তবে স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যম কাদেনা সের দাবি করেছে, তারা চুক্তিপত্র দেখেছে। সেখানে তারিখের উল্লেখ নেই। বরং তিন বছরের চুক্তিতে বলা আছে শেষ বছরটা ঐচ্ছিক চুক্তি। মৌসুম শেষে চলে যেতে পারবেন মেসি। কোন রিলিজ ক্লজ ছাড়াই। করোনার কারণে মৌসুম জুনে শেষ হয়নি। মেসির তাই ফ্রিতে বার্সা ছাড়ার সুযোগ আছে বলে জানিয়েছে সংবাদ মাধ্যমটি। বার্সার তাই হাতের ও পাতের দুই‘ই হারানোর সম্ভাবনা আছে।

infotechitbd

I am professional blogger. Always try to share knowledge or information to others throw the blog site.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *